modhu,মধুর উপকারিতা,খাঁটি মধু চেনার উপায়, খাঁটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?

মধুর উপকারিতা,মধুর ক্ষতি,খাটি মধু চিনার উপায়,মধু সম্পর্কে হাদিস,ইসলামে মধুর উপকারিতা,মধু খাওয়ার নিয়ম,কোন মধু সবচেয়ে ভাল,মধু কত প্রকার?,কোন মধুর দাম কত?,খাটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?,
মধুর উপকারিতা,মধুর ক্ষতি,খাটি মধু চিনার উপায়,মধু সম্পর্কে হাদিস,ইসলামে মধুর উপকারিতা,মধু খাওয়ার নিয়ম,কোন মধু সবচেয়ে ভাল,মধু কত প্রকার?,কোন মধুর দাম কত?,খাটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?,
modhu,মধুর উপকারিতা,মধুর ক্ষতি,খাঁটি মধু চেনার উপায়,মধু সম্পর্কে হাদিস,ইসলামে মধুর উপকারিতা,মধু খাওয়ার নিয়ম,কোন মধু সবচেয়ে ভাল,মধু কত প্রকার?,কোন মধুর দাম কত?,খাটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?

মধু খুব পরিচিত একটি শব্দ তাইনা? অনেকেই মধুর উপকারিতা সম্পর্কে জানে কিন্তু মধুর অপকারিতা সম্পর্কে কয়জন জানে?তুমি যদি খাঁটি মধু খুজে থাকো তাহলে তুমি ঠিক জায়গাতেই এসেছো কারন আমি এই আর্টিকেল এ দেখাবো তুমি কিভাবে মধু পরীক্ষা করবে? মানে খাঁটি মধু চেনার উপায় কি? খাঁটি মধু কোথায় পাওয়া যায়? আচ্ছা তুমি কি জানো মধু কত প্রকার? আচ্ছা তুমি কি মধু সম্পর্কে হাদিস গুলো পরেছো? শুনো জানতে হলে পড়তে হয়, আশা করি তুমি এই আর্টিকেল টি মনোযোগ সহকারে পড়বে।

এই আর্টিকেল টি মনোযোগ সহকারে পড়লে তুমি কি কি জানতে পারবে? এই আর্টিকেল টি মনোযোগ সহকারে পড়লে তুমি জানতে পারবে মধুর উপকারিতা,মধুর ক্ষতি,খাঁটি মধু চেনার উপায়,মধু সম্পর্কে হাদিস,ইসলামে মধুর উপকারিতা,মধু খাওয়ার নিয়ম,কোন মধু সবচেয়ে ভাল,মধু কত প্রকার?,কোন মধুর দাম কত?,খাটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?

modhu, মধু হল এক প্রকারের মিষ্টি ও ঘন তরল পদার্থ, যা মৌমাছি ও অন্যান্য পতঙ্গ /কীট/পোকা ফুলের নির্যাস হতে তৈরি করে এবং মৌচাকে সংরক্ষণ করে।

এটি উচ্চ ঔষধিগুণ সম্পন্ন একটি ভেষজ তরল ,এটি সুপেয়। বিভিন্ন খাবার তৈরি তে এর ব্যবহার অনেক। চিনির চেয়ে মধুর অনেক সুবিধা রয়েছে।তাই বেশীরভাগ মানুষ চিনির পরিবর্তে মধু ব্যাবহার করে। মধুর বিশিষ্ট গন্ধের জন্য অনেকে চিনির চাইতে মধুকেই পছন্দ করে থাকেন।আশা করি এই আর্টিকেল পড়ার পর তুমি নিজেও মধুকে পছন্দের তালিকার প্রথমে স্থান দিবা, দিতে তোমাকে হবেই।

বাংলাদেশের সুন্দরবনের মধু স্বাদ, রং, হালকা সুগন্ধ এবং ঔষধিগুণাবলীর জন্য বিখ্যাত।বাংলাদেশ সহ আরো অনেক দেশ এর মানুষ ই সুন্দরবনের মধু পান করে থাকে, কারন সুন্দরবনের মধুর স্বাদ, রং, হালকা সুগন্ধ সবাইকে পাগল করে তুলে।
সুন্দরবনের বেশিরভাগ মধু কেওড়া গাছের ফুল থেকে উৎপন্ন। সুন্দরবনের মাওয়ালী সম্প্রদায়ের লোকেরা মৌচাক থেকে মধু সংগ্রহ করে এবং তা বিক্রয় করে জীবন নির্বাহ করে। মধুর অন্য একটি গুণ হল এটি সহজে নষ্ট হয় না৷

মধুর এই গুনাগুন এর কারনেও অনেকে মধুকে পছন্দের তালিকার প্রথমে স্থান দেয়। অনেকেই বলে থাকে যে কখনো মধু খায়নি সে কিছুই খায় নি। তুমি যদি কখনো মধু না খেয়ে থাকো তাহলে আজ ই সময় মধু কিনার। কিন্তু খাঁটি মধু চিনবে কিভাবে? অনেক প্রতারক ব্যবসায়ী ই তোমার সরলতার সুযোগ নিতে চাইবে।

তাই মধু কিনার আগে জেনে নাও খাটি মধু চিনার উপায়। খাঁটি মধু চিনার উপায় বলার আগে তোমাকে খাটি মধুর উপকারিতা সম্পর্কে বলবো।

মধুর উপকারিতা,মধুর ক্ষতি,খাটি মধু চিনার উপায়,মধু সম্পর্কে হাদিস,ইসলামে মধুর উপকারিতা,মধু খাওয়ার নিয়ম,কোন মধু সবচেয়ে ভাল,মধু কত প্রকার?,কোন মধুর দাম কত?,খাটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?,
মধুর উপকারিতা,মধুর ক্ষতি,খাঁটি মধু চেনার উপায়,মধু সম্পর্কে হাদিস,ইসলামে মধুর উপকারিতা,মধু খাওয়ার নিয়ম,কোন মধু সবচেয়ে ভাল,মধু কত প্রকার?,কোন মধুর দাম কত?,খাটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?,

শুনো কিছু শিখতে হলে সময় দিতে হয়, তুমি যদি সময় নিয়ে মনোযোগ সহকারে এই আর্টিকেল টি পড়ো তাহলে তুমি জানতে পারবে মধুর উপকারিতা,মধু সম্পর্কে হাদিস,ইসলামে মধুর উপকারিতা,মধু খাওয়ার নিয়ম,খাঁটি মধু চিনার উপায়,মধু কত প্রকার?,কোন মধুর দাম কত?, খাঁটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?

আশা করি তুমি এই গুলা সম্পর্কে জানতে চাও, তাই তোমার জন্য বিস্তারিত লিখছি, সময় নিয়ে মনোযোগ সহকারে পড়বে কিন্তু।

মধুর উপকারিতা :

মধুর উপকারিতা,
মধুর উপকারিতা

modhu, মধুর উপকারিতা বলে শেষ করা যাবে না, যেহেতু তোমাকে বলেছি তোমাকে মধুর উপকারিতা সম্পর্কে বলব তাই কিছু তো বলতে হবেই।


শুনো , মধুর উপকারিতা অনেক। শিশু,যুবক অথবা বৃদ্ধ তুমি যেকোনো বয়সের ই হও না কেন মধু সব সময় ই তোমার উপকার করবে।তবে হ্যাঁ, খাঁটি মধু কিনতে হবে। কম দামে পেলেই যাচাই বাছাই ছাড়া মধু কিনবে না।


এবার শুনো মধুর ৩০ টি উপকার এর কথা তোমাকে বলি, মনোযোগ সহকারে পড়বে কিন্তু,


১।হৃদরোগ প্রতিরোধ করে। রক্তনালি প্রসারণের মাধ্যমে রক্ত সঞ্চালনে সহায়তা করে এবং হৃদপেশির কার্যক্রম বৃদ্ধি করে

২. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে

৩. দাঁতকে পরিষ্কার ও শক্তিশালী করে

৪. দৃষ্টিশক্তি ও স্মরণশক্তি বৃদ্ধি করে

৫. মধুর রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্ষমতা, যা দেহকে নানা ঘাত-প্রতিঘাতের হাত থেকে রক্ষা করে

৬. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্যান্সার প্রতিরোধ করে ও কোষকে ফ্রি রেডিকেলের ক্ষতি থেকে রক্ষা করে

৭. বার্ধক্য অনেক দেরিতে আসে

৮. মধুর ক্যালরি রক্তের হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ বাড়ায়, ফলে রক্তবর্ধক হয়

৯. যারা রক্ত স্বল্পতায় বেশি ভোগে বিশেষ করে মহিলারা, তাদের জন্য নিয়মিত মধু সেবন অত্যন্ত ফলদায়ক

১০. গ্লাইকোজেনের লেভেল সুনিয়ন্ত্রিত করে

১১. আন্ত্রিক রোগে উপকারী। মধুকে এককভাবে ব্যবহার করলে পাকস্থলীর বিভিন্ন রোগের উপকার পাওয়া যায়

১২. আলচার ও গ্যাস্ট্রিক রোগের জন্য উপকারী

১৩. দুর্বল শিশুদের মুখের ভেতর পচনশীল ঘায়ের জন্য খুবই উপকারী

১৪. শরীরের বিভিন্ন ধরনের নিঃসরণ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে এবং উষ্ণতা বৃদ্ধি করে

১৫. ভিটামিন-বি কমপ্লেক্স এবং ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ মধু স্নায়ু এবং মস্তিষ্কের কলা সুদৃঢ় করে

;১৬. মধুতে স্টার্চ ডাইজেস্টি এনজাইমস এবং মিনারেলস থাকায় চুল ও ত্বক ঠিক রাখতে অনন্য ভূমিকা পালন করে

১৭. মধু কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে

১৮. ক্ষুধা, হজমশক্তি ও রুচি বৃদ্ধি করে

১৯. রক্ত পরিশোধন করে

২০. শরীর ও ফুসফুসকে শক্তিশালী করে

২১. জিহ্বার জড়তা দূর করে

২২. মধু মুখের দুর্গন্ধ দূর করে

২৩. বাতের ব্যথা উপশম করে

২৪. মাথা ব্যথা দূর করে

২৫. শিশুদের দৈহিক গড়ন ও ওজন বৃদ্ধি করে

২৬. গলা ব্যথা, কাশি-হাঁপানি এবং ঠাণ্ডা জনিত রোগে বিশেষ উপকার করে

২৭. শিশুদের প্রতিদিন অল্প পরিমাণ মধু খাওয়ার অভ্যাস করলে তার ঠাণ্ডা, সর্দি-কাশি, জ্বর ইত্যাদি সহজে হয় না

২৮. শারীরিক দুর্বলতা দূর করে এবং শক্তি-সামর্থ্য দীর্ঘস্থায়ী করে

২৯. ব্যায়ামকারীদের শক্তি বাড়ায়;

৩০. মধু খাওয়ার সাথে সাথে শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি করে, ফলে শরীর হয়ে উঠে সুস্থ, সতেজ এবং কর্মক্ষম।

খাঁটি মধু চেনার উপায় :

খাটি মধু চিনার উপায়,
খাঁটি মধু চেনার উপায়

শুনো, খাঁটি মধু চেনার অনেক উপায় থাকলেও আমি তোমাকে খাঁটি মধু চেনার ৩ টা উপায় বলব যা তুমি ঘরে বসে নিজেই পরীক্ষা করতে পারবে। কি লাভ খাঁটি মধু চিনার অনেক গুলো উপায় বলে, যদিনা তুমি নিজে ঘরে বসে পরীক্ষা করতেই না পারো। কোন লাভ আছে বলো?

আসলে খাঁটি মধু চেনার নির্দিষ্ট কোন উপায় নেই, একেক ফুলে একেক রকম মধু হয়। আবার শীত কালে মধু বেশী জমে গরমকালের তুলনায়। তারপর ও আমি তোমাকে খাঁটি মধু চেনার সহজ ৩ টি উপায় বলছি, তা তুমি নিজেই ঘরে বসে পরীক্ষা করতে পারবে, খুব মনোযোগ সহকারে পড়বে কিন্তু নাহয় ভালোভাবে পরীক্ষা করতে পারবে না।

১. বুড়ো আঙুলের পরীক্ষা


সামান্য মধু নিন বুড়ো আঙুলে। দেখুন, এটি অন্যান্য তরলের মতো ছড়িয়ে পড়ে কি না। মধু খাঁটি না হলে তা অন্য তরলের মতো দ্রুত ছড়িয়ে পড়বে। কিন্তু আসল মধু ঘন হয়ে আটকে থাকবে। সহজে ছড়াবে না। আবার একটু বেশি পরিমাণ মধু নিয়ে বুড়ো আঙুল উল্টো করে ধরে রাখলে তা সহজে ফোঁটা আকারে পড়বে না।

২. পানির পরীক্ষা


এক গ্লাস পানিতে এক চা চামচ মধু নিন। ভেজাল মধু শিগগিরই মিশে যাবে পানির সঙ্গে। কিন্তু আসল মধু মিশে গেলেও এর কিছু অংশ ঘন হয়ে ভেসে বেড়াবে পানিতে। বিশেষ করে সামান্য অংশ তলানিতে পড়ে থাকবে। কিন্তু বাজে মানের মধু একেবারে হাওয়া হয়ে যাবে।

৩. আগুনের পরীক্ষা


হয়তো এ পদ্ধতির কথা এর আগে শোনেননি। খাঁটি মধু কিন্তু দাহ্য পদার্থ। তবে মধুতে আগুন জ্বালানোর আগে সাবধান থাকবেন। নিরাপত্তাব্যবস্থা পরিপূর্ণ করতে হবে। তবে পরীক্ষা অতি সাধারণ। ম্যাচের একটা কাঠি মধুতে চুবিয়ে নিন। এবার এই কাঠি জ্বালাতে ম্যাচবক্সে আঘাত করুন। জ্বলে উঠলে মধু নিয়ে নিশ্চিত থাকতে পারেন। আর মধুতে ভেজাল থাকলে আগুন জ্বলবে না।

মধু কিনে এই ৩ টি উপায়ে পরীক্ষা করে দেখবে তুমি যেই মধু কিনেছো সেই মধু আসলে খাঁটি কিনা বুঝলে?

তুমি চাইলে ভিডিও টা দেখতে পারো।

খাঁটি মধু চেনার উপায় ।

মধু সম্পর্কে হাদিস / ইসলামে মধুর উপকারিতা :

মধু সম্পর্কে হাদিস,
মধু সম্পর্কে হাদিস

আমাদের শরীরের জন্য মধুর উপকারিতা এতটাই বেশি যে- কুরআন এবং হাদীসেও মধুর অনেক গুনাগুন সম্পর্কে বলা হয়েছে। পরবর্তিকালে বিজ্ঞানীদের দ্বারা তা সত্য বলে প্রমানিত হয়েছে। অথচ আমাদের অনেকের কাছেই তা অজানা বলে মধুর উপকারিতা আমরা কাজে লাগাতে পারি না। আসুন আজ দেখে নেই মধুর উপকারিতা সম্পর্কে কুরআন ও হাদীসে কি বলা হয়েছেঃ

কুরআন ও হাদীস অনুযায়ী মধুর উপকারিতা

  • আপনার পালনকর্তা মৌমাছিকে আদেশ দিলেনঃ পাহাড়ে, গাছে এবং উঁচু চালে গৃহ তৈরী কর, এরপর সর্বপ্রকার ফল থেকে ভক্ষণ কর এবং আপন পালনকর্তার উম্মুক্ত পথ সমূহে চলমান হও। তার পেট থেকে বিভিন্ন রঙে পানীয় নির্গত হয়। তাতে মানুষের জন্যে রয়েছে রোগের প্রতিকার। নিশ্চয় এতে চিন্তাশীল সম্প্রদায়ের জন্যে নিদর্শন রয়েছে।  – সূরা আন-নাহল(১৬), আয়াতঃ ৬৮-৬৯
  • প্রিয়নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেন, ‘মধুতে আরোগ্য নিহিত আছে।’  (সহীহ বুখারি: ৫২৪৮)।
  • আয়েশা (রা.) বলেন, প্রিয়নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এর কাছে মধু ও মিষ্টান্ন খুব প্রিয় ছিল।  (সহীহ বুখারি: ৫২৫০)।
  • রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেন, ‘যে ব্যক্তি প্রতি মাসে তিন দিন সকালে মধু চেটে খাবে, তার বড় ধরনের কোনো রোগ হবে না।’ (ইবনে মাজাহ : ৩৪৪১)।
  • আয়্যাশ ইবন ওয়ালীদ (রহঃ) আবূ সা’ঈদ (রাঃ) থেকে বর্ণিত। এক ব্যাক্তি নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এর নিকট এসে বললঃ আমার ভাইয়ের পেটে অসুখ হয়েছে। তখন নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বললেনঃ তাকে মধূ পান করাও। এরপর লোকটি দ্বিতীয়বার আসলে তিনি বললেনঃ তাকে মধু পান করাও। সে তৃতীয়বার আসলে তিনি বললেনঃ তাকে মধু পান করাও। এরপর লোকটি পুনরায় এসে বললঃ আমি অনুরূপই করেছি। তখন নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বললেনঃ আল্লাহ সত্য বলেছেন, কিন্তু তোমার ভাইয়ের পেট অসত্য বলছে। তাকে মধু পান করাও। সে তাকে মধু পান করাল। এবার সে আরোগ্য লাভ করল। – সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ চিকিৎসা হাদিস নাম্বারঃ ৫২৮২

মধুর চাক কাটার ভিডিও :

চাক থেকে কিভাবে মধু কাটে নিজের চোখেই দেখো

মধুর চাক কাটার ভিডিও

মধুর ক্ষতি :

মধুর ক্ষতি,
মধুর ক্ষতি

সকল কিছুর ই উপকার এর পাশাপাশি অপকার ও থাকে।

শুনো, কোনকিছুই বেশী ভালো , ভালো না।

মধু শরীরের জন্যে খুবই উপকারী। তবুও দিনে ২৫ গ্রামের বেশি মধু খাওয়া উচিৎ না; কারণ এতে রয়েছে ৫৩% ফ্রুকটোজ যা ২৫ গ্রামের বেশি শরীরে প্রবেশ করা ক্ষতিকারক। 

গর্ভাবস্থা ও স্তন্যপানের জন্যে ঠিক না।

যদিও এই বিষয়ে খুব একটা প্রমাণ পাওয়া যায়নি, তবুও কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে যে গর্ভাবস্থায় বা যারা স্তন্যপান করান তাদের ক্ষেত্রে মধুর অনেক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়। মধু তাদের জন্যে ক্ষতিকর হতে পারে।

মধু খাওয়ার নিয়ম :

মধু খাওয়ার নিয়ম,
মধু খাওয়ার নিয়ম

আসলে মধু খাওয়ার নির্দিষ্ট কোন নিয়ম নাই। তারমানে এই না যে,প্রতিদিন ১০০ গ্রাম মধু খেয়ে ফেলবে।

শুনো মধু কখনো একদিনে ২৫ গ্রাম এর বেশী পান করবে না তাহলে তোমার হ্মতি হতে পারে, আর একটা কথা সব সময় মনে রাখবা,

মধু সবসময় প্রাকৃতিক অবস্থায় খাওয়া উচিত ।

কোন মধু সবচেয়ে ভাল?

কোন মধু সবচেয়ে ভাল?,
কোন মধু সবচেয়ে ভাল?

শুনো মধু কখনো খারাপ হয় না, সকল মধুই ভালো।তুমি শুধু দেখবে মধু খাঁটি কিনা?

মধু কত প্রকার?

মধু কত প্রকার?,
মধু কত প্রকার?

প্রকৃতিতে ফুল যত প্রকার মধুও তত প্রকার, মানে যত প্রকার ফুল থেকে মৌমাছি মধু সংগ্রহ করে মধু তত প্রকার ই।

কি সামান্য এলোমেলো হয়ে যাচ্ছে?

আসো তোমাকে ক্লিয়ার করে দেই, শুনো এখন যদি তুমি মনোযোগ সহকারে পড়ো তাহলে আর কখনো এলোমেলো করে ফেলবে না ইনশাআল্লাহ্‌।

প্রথমত তুমি দুই রকমের মধু পেতে পারো ,হয় চাষ করা মধু আর নাহয় প্রাকৃতিক চাক কাটা মধু।

যদি চাষের মধুর কথাই বলি, তাহলে শুনো আমি যখন যে ফুল চাষ করব তখন মৌমাছি তো সেই ফুল থেকেই মধু সংগ্রহ করবে তাইনা? ধরো এখন আমি সরিষা ফুল চাষ করছি তাহলে আমি যেই মৌমাছি গুলা পালন করি তারা তো সরিষা ফুল থেকেই মধু সংগ্রহ করবে তাইনা? কিন্তু আমি যদি শীতের দিনে আম চাই তাহলে পাব? যখন যে সিজন চলবে তখন আমাকে তাই চাষ করতে হবে।

modhu

এবার আসো , প্রাকৃতিক চাক কাটা মধুর কথা বলি।

প্রাকৃতিক চাক কাটা মধু বলতে বুঝায় গ্রামে গ্রামে ঘুরে মৌয়ালরা যে চাক কাটে সেই চাক থেকে সংগ্রহ করা মধু।

কিন্তু সেই চাকের মধ্যে কি মধু থাকে? কি প্রশ্ন যাগে না মনে?

যখন যে ফুল এর সিজন থাকে প্রাকৃতিক চাক এর মধ্যে সেই ফুলের মধুই থাকে। এখন মনে করো সরিষা ফুলের সিজন তো মৌমাছিরা কোথা থেকে মধু সংগ্রহ করবে বলো? সরিষা ফুল থেকেই তো তাইনা?

আশা করি তুমি ব্যাপার টা আর এলোমেলো করে ফেলবে না।

কোন মধুর দাম কত?

কোন মধুর দাম কত?,
কোন মধুর দাম কত?

আসলে মধুর দাম এভাবে বলা যায় না, একেকজনের কাছে মধুর দাম একেকরকম।

আমরা গ্রাম গ্রাম ঘুরে চাক কেটে মধু সংগ্রহ করি, তুমি চাইলে আমাদের কাছ থেকে ১০০% খাঁটি প্রাকৃতিক চাক কাটা মধু কিনতে পারো।মধু কিনার পর যদি পরিহ্মা করে দেখো যে এটা খাঁটি মধু না তাহলে তুমি ফেরত দিয়ে তোমার টাকা নিয়ে নিতে পারো। আসলে আমরা ১০০% খাঁটি মধু বিক্রি করি ,কিন্তু তুমি তো আমাদের কাছ থেকে আগে কখনো মধু কিনো নি। তুমি আমাদের বিশ্বাস নাও করতে পারো তাই ফেরত এর কথা বললাম।

আমাদের কাছ থেকে একবার মধু কিনেই দেখো ১০০% খাঁটি মধু পাবে ইন শা আল্লাহ।

খাঁটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?

খাঁটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?,
খাঁটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?

খাঁটি মধু আমাদের কাছে পাওয়া যায়।

আমি বলছি না যে, শুধু মাত্র আমরাই খাঁটি মধু বিক্রি করে থাকি।

আরো অনেকেই আমাদের মত খাঁটি মধু বিক্রি করে

আমরা গ্রাম গ্রাম ঘুরে চাক কেটে মধু সংগ্রহ করি, তুমি চাইলে আমাদের কাছ থেকে ১০০% খাঁটি প্রাকৃতিক চাক কাটা মধু কিনতে পারো।মধু কিনার পর যদি পরিহ্মা করে দেখো যে এটা খাঁটি মধু না তাহলে তুমি ফেরত দিয়ে তোমার টাকা নিয়ে নিতে পারো। আসলে আমরা ১০০% খাঁটি মধু বিক্রি করি ,কিন্তু তুমি তো আমাদের কাছ থেকে আগে কখনো মধু কিনো নি। তুমি আমাদের বিশ্বাস নাও করতে পারো তাই ফেরত এর কথা বললাম।

আমাদের সাথে কিভাবে যোগাযোগ করবে?

তুমি চাইলে আমার ফেসবুক আইডি তে মেসেজ দিতে পারো ,বাকি কথা নাহয় ফেসবুক মেসেঞ্জার এই হোক কি বলো?

আমার ফেসবুক আইডি লিংক: https://www.facebook.com/mohammadrakib00

Mohammad Rakib
Mohammad RAkib

লিংক এ সমস্যা হলে ফেসবুক এ গিয়ে সার্চ দিতে পার mohammadrakib00 লিখে।

এই আর্টিকেলটি তোমার কাছে কেমন লেগেছে তা কমেন্ট করে জানাও, আর ভালো লাগলে তোমার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করো।

আরো পড়ুনঃ ঘরে বসে ১০০% খাটি দই বানান।

তুমি কি ঘরে বসে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারো?

যদি না পারো তাহলে নিচের আর্টিকেল টি পড়ে নাও।

how to open a bkash account in bangladesh

তোমার বন্ধুরাও তো মধু কিনে তাইনা? তারা যদি খাঁটি মধু না চিনে তাহলে খাঁটি মধু কিনবে কিভাবে বলো?

তাই তোমার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে দাও, আর তোমার কেমন লাগল তা কমেন্ট করে জানাও।

সার্চগুলি মধুর উপকারিতা-এর সাথে জড়িত

মধুর উপকারিতা কী কী

মধুর উপকারিতা ও অপকারিতা

ইসলামে মধুর উপকারিতা

খাঁটি মধুর উপকারিতা

পুরাতন মধুর উপকারিতা

কালোজিরা ফুলের মধুর উপকারিতা

রাতে মধু খাওয়ার উপকারিতা

ডায়াবেটিসে মধুর উপকারিতা

সার্চগুলি খাঁটি মধু চেনার উপায়-এর সাথে জড়িত

সরিষা ফুলের মধু চেনার উপায়

সহজে খাটি মধু চেনার উপায়

বিশুদ্ধ মধু চেনার উপায়

খাঁটি মধু পরীক্ষা করার উপায়

খাঁটি মধুর দাম

খাঁটি মধু কোথায় পাওয়া যাবে

মধু পরীক্ষা করার নিয়ম

খাটি মধুর বৈশিষ্ট্য

সার্চগুলি খাঁটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?-এর সাথে জড়িত

খাটি মধুর দাম

খাঁটি মধুর দাম

খাঁটি মধু চেনার উপায়

কোন মধু সবচেয়ে ভাল

সুন্দরবনের খাঁটি মধু

4 thoughts on “modhu,মধুর উপকারিতা,খাঁটি মধু চেনার উপায়, খাঁটি মধু কোথায় পাওয়া যায়?

    1. ধন্যবাদ কমেন্ট করার জন্য, আর্টিকেল টি ভালো লাগলে শেয়ার করে আপনার বন্ধুদের মাঝে ছড়িয়ে দিন।

  1. খুব ভালো লাগলো সব কিছু জানতে পেরে। এখানে অনেক কিছু আছে শিখার মত। ধন্যবাদ অনেক ভালো লাগলো আপনার পোষ্টটি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *